কূলে kule [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কূলে kule [ কবিতা ]

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাব্যগ্রন্থ : ক্ষণিকা [ ১৯০০ ]

কবিতার শিরোনামঃ কূলে

কূলে kule [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কূলে kule [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

আমাদের এই নদীর কূলে

            নাইকো স্নানের ঘাট,

            ধূধূ করে মাঠ।

ভাঙা পাড়ির গায়ে শুধু

            শালিখ লাখে লাখে

            খোপের মধ্যে থাকে।

সকালবেলা অরুণ আলো

            পড়ে জলের ‘পরে,

     নৌকা চলে দু-একখানি

            অলস বায়ু-ভরে।

আঘাটাতে বসে রইলে,

            বেলা যাচ্ছে বয়ে–

দাও গো মোরে কয়ে

ভাঙন-ধরা কূ-লে তোমার

            আর কিছু কি চাই?

কূলে kule [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

                        সে কহিল,ভাই,

            না ই, না ই, নাই গো আমার

                        কিছুতে কাজ নাই।

আমাদের এ নদীর কূ-লে

            ভাঙা পাড়ির তল,

            ধেনু খায় না জল।

দূর গ্রামের দু-একটি ছাগ

            বেড়ায় চরি চরি

            সারা দিবস ধরি।

জলের ‘পরে বেঁকে-পড়া

            খেজুর-শাখা হতে

ক্ষণে ক্ষণে মাছরাঙাটি

            ঝাঁপিয়ে পড়ে স্রোতে।

কূলে kule [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

ঘাসের ‘পরে অশথতলে

            যাচ্ছে বেলা বয়ে–

            দাও আমারে কয়ে

আজকে এমন বিজন প্রাতে

            আর কারে কি চাই?

                        সে কহিল, ভাই,

            না ই, না ই, নাই গো আমার

                        কারেও কাজ নাই।

কূলে kule [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
আরও পড়ুনঃ

Amar Rabindranath Logo

প্রত্যক্ষ প্রমাণ protokhyo proman [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

অযোগ্যের উপহাস ojogyer upohas [ কবিতা ] – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

নদীর প্রতি খাল nodir proti khal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 

মন্তব্য করুন

error: Content is protected !!