কে বলে সব ফেলে ke bole sob fele [ কবিতা ] – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কে বলে সব ফেলে

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাব্যগ্রন্থ : গীতাঞ্জলি [ ১৯১০ ]

কবিতার শিরনামঃ কে বলে-সব ফেলে

কে বলে সব ফেলে ke bole sob fele [ কবিতা ] - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

কে বলে সব ফেলে ke bole sob fele [ কবিতা ] – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কে বলে-সব ফেলে যাবি

             মরণ হাতে ধরবে যবে।

জীবনে তুই যা নিয়েছিস

             মরণে সব নিতে হবে।

  এই ভরা ভাণ্ডারে এসে

  শূন্য কি তুই যাবি শেষে।

  নেবার মতো যা আছে তোর

             ভালো করে নেই তুই তবে।

আবর্জনার অনেক বোঝা

             জমিয়েছিস যে নিরবধি,

বেঁচে যাবি, যাবার বেলা

             ক্ষয় করে সব যাস রে যদি।

  এসেছি এই পৃথিবীতে,

  হেথায় হবে সেজে নিতে,

  রাজার বেশে চল্‌ রে হেসে

             মৃত্যুপারের সে উৎসবে।

 

আরো একবার যদি পারি aro ekbar jodi pari [ কবিতা ] - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

আরও দেখুনঃ

যোগাযোগ

পয়লা আশ্বিন poyla ashwin [ কবিতা ] রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

গানের বাসা ganer basa [ কবিতা ] রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

শেষ প্রতিষ্ঠা shesh potishtha [ কবিতা ] – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

মন্তব্য করুন

error: Content is protected !!