গৌড়ী রীতি কবিতা | gouri riti kobita | প্রহাসিনী কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

গৌড়ী রীতি কবিতাটি [ gouri riti kobita ] কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর প্রহাসিনী কাব্যগ্রন্থের অংশ।

গৌড়ী রীতি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাব্যগ্রন্থের নামঃ প্রহাসিনী

কবিতার নামঃ গৌড়ী রীতি

 

গৌড়ী রীতি কবিতা | gouri riti kobita | প্রহাসিনী কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

গৌড়ী রীতি কবিতা | gouri riti kobita | প্রহাসিনী কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

নাহি চাহিতেই ঘোড়া দেয় যেই,

      ফুঁকে দেয় ঝুলি থলি,

লোকে তার ‘পরে মহারাগ করে

      হাতি দেয় নাই বলি।

বহু সাধনায় যার কাছে পায়

      কালো বিড়ালের ছানা,

লোকে তারে বলে নয়নের জলে,

      “দাতা বটে ষোলো-আনা।”

বিপুল ভোজনে মনের ওজনে

      ছটাক যদি বা কমে

সেই ছটাকের চাঁটিতে ঢাকের

      গালাগালি-বোল জমে।

 

গৌড়ী রীতি কবিতা | gouri riti kobita | প্রহাসিনী কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 

দেনার হিসাবে ফাঁকিই মিশাবে,

      খুঁজিয়া না পাবে চাবি–

পাওনা-যাচাই কঠিন বাছাই,

      শেষ নাহি তার দাবি।

রুদ্ধ দুয়ার বহুমান তার

      দ্বারীর প্রসাদে খোলে।

মুক্ত ঘরের মহা আদরের

      মূল্য সবাই ভোলে।

সামনে আসিয়া নম্র হাসিয়া

      স্তবের রবের দৌড়,

পিছনে গোপন নিন্দারোপণ–

      ধন্য ধন্য গৌড়।

আরও দেখুনঃ

Amar Rabindranath Logo

মন্তব্য করুন