প্রতীক্ষা কবিতা রবীন্দ্র-নাথ | protikkha kobita | সেঁজুতি কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

প্রতীক্ষা কবিতা রবীন্দ্র-নাথকবিতাটি [ protikkha kobita ] কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর সেঁজুতি কাব্যগ্রন্থের অংশ।

প্রতীক্ষা

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর 

কাব্যগ্রন্থের নামঃ সেঁজুতি

কবিতার নামঃ প্রতীক্ষা

 

প্রতীক্ষা কবিতা রবীন্দ্র-নাথ | protikkha kobita | সেঁজুতি কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

প্রতীক্ষা কবিতা রবীন্দ্র-নাথ | protikkha kobita | সেঁজুতি কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

অসীম আকাশে মহাতপস্বী

          মহাকাল আছে জাগি।

আজিও যাহারে কেহ নাহি জানে,

দেয় নি যে দেখা আজো কোনোখানে,

সেই অভাবিত কল্পনাতীত

          আবির্ভাবের লাগি

          মহাকাল আছে জাগি।

বাতাসে আকাশে যে নবরাগিণী

জগতে কোথাও কখনো জাগে নি

রহস্যলোকে তারি গান সাধা

          চলে অনাহত রবে।

 

প্রতীক্ষা কবিতা রবীন্দ্র-নাথ | protikkha kobita | সেঁজুতি কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

ভেঙে যাবে বাঁধ স্বর্গপুরের,

প্লাবন বহিবে নূতন সুরের,

বধির যুগের প্রাচীন প্রাচীর

          ভেসে চলে যাবে তবে।

যার পরিচয় কারো মনে নাই,

যার নাম কভু কেহ শোনে নাই,

না জেনে নিখিল পড়ে আছে পথে

          যার দরশন মাগি–

তারি সত্যের অপরূপ রসে

চমকিবে মন অভূত পরশে,

মৃত পুরাতন জড় আবরণ

          মুহূর্তে যাবে ভাগি,

যুগ যুগ ধরি তাহার আশায়

          মহাকাল আছে জাগি।

আরও দেখুনঃ 

Amar Rabindranath Logo

মন্তব্য করুন