বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে , পূজা ৩২১ | Baje baje rommobina baje

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে , পূজা ৩২১ | Baje baje rommobina baje  রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কলকাতার এক ধনাঢ্য ও সংস্কৃতিবান ব্রাহ্ম পিরালী ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।বাল্যকালে প্রথাগত বিদ্যালয়-শিক্ষা তিনি গ্রহণ করেননি; গৃহশিক্ষক রেখে বাড়িতেই তার শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছিল।আট বছর বয়সে তিনি কবিতা লেখা শুরু করেন।১৮৭৪ সালে তত্ত্ববোধিনী পত্রিকা-এ তার “অভিলাষ” কবিতাটি প্রকাশিত হয়। এটিই ছিল তার প্রথম প্রকাশিত রচনা।

 

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে , পূজা ৩২১ | Baje baje rommobina baje

রাগ: ইমনকল্যাণ

তাল: তেওরা

রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): ১৩১৫

 

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে , পূজা ৩২১ | Baje baje rommobina baje
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে:

 

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে–

অমলকমল-মাঝে, জ্যোৎস্নারজনী মাঝে,

কাজলঘন-মাঝে, নিশি আঁধার-মাঝে,

কুসুমসুরভি-মাঝে বীনরণন শুনি যে–

প্রেমে প্রেমে বাজে ॥

নাচে নাচে রম্যতালে নাচে–

তপন তারা নাচে, নদী সমুদ্র নাচে,

জন্মমরণ নাচে, যুগযুগান্ত নাচে,

ভকতহৃদয় নাচে বিশ্বছন্দে মাতিয়ে–

প্রেমে প্রেমে নাচে ॥

সাজে সাজে রম্যবেশে সাজে–

নীল অম্বর সাজে, উষাসন্ধ্যা সাজে,

ধরণীধূলি সাজে, দীনদুঃখী সাজে,

প্রণত চিত্ত সাজে বিশ্বশোভায় লুটায়ে–

প্রেমে প্রেমে সাজে ॥

 

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে , পূজা ৩২১ | Baje baje rommobina baje
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৯১৫টি গান রচনা করেছিলেন।ধ্রুপদি ভারতীয় সংগীত, বাংলা লোকসংগীত ও ইউরোপীয় সংগীতের ধারা তিনটিকে আত্মস্থ করে তিনি একটি স্বকীয় সুরশৈলীর জন্ম দেন।

 

১৮৮৩ সালে মৃণালিনী দেবীর সঙ্গে তার বিবাহ হয়। ১৮৯০ সাল থেকে রবীন্দ্রনাথ পূর্ববঙ্গের শিলাইদহের জমিদারি এস্টেটে বসবাস শুরু করেন। ১৯০১ সালে তিনি পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতনে ব্রহ্মচর্যাশ্রম প্রতিষ্ঠা করেন এবং সেখানেই পাকাপাকিভাবে বসবাস শুরু করেন। ১৯০২ সালে তার পত্নীবিয়োগ হয়। ১৯০৫ সালে তিনি বঙ্গভঙ্গ-বিরোধী আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন। ১৯১৫ সালে ব্রিটিশ সরকার তাকে ‘নাইট’ উপাধিতে ভূষিত করেন।

 

বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে , পূজা ৩২১ | Baje baje rommobina baje
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]
আরও দেখুনঃ

মন্তব্য করুন