বিদায় কবিতা বিচিত্রতা | biday kobita | বিচিত্রতা কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বিদায় কবিতা বিচিত্রতা [ biday kobita ] কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর নবজাতক কাব্যগ্রন্থের অংশ।

বিদায়

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাব্যগ্রন্থের নামঃ বিচিত্রতা

কবিতার নামঃ বি’দায়

 

বিদায় কবিতা নবজাতক | biday kobita | নবজাতক কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

বিদায় কবিতা বিচিত্রতা | biday kobita | বিচিত্রতা কাব্যগ্রন্থ | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

তোমার আমার মাঝে হাজার বৎসর

নেমে এল, মুহূর্তেই হল যুগান্তর।

        মাথায় ঘোমটা টানি

        যখনি ফিরালে মুখখানি

            কোনো কথা নাহি বলি,

            তখনি অতীতে গেলে চলি–

               যে-অতীতে অসীম বিরহে

                   ছায়াসম রহে

                 বর্তমানে যারা

               হয়েছে প্রেমের পথহারা।

            যে-পারে গিয়েছ হোথা

                   বেশি দূর নহে এখনো তা।

 

বিদায় biday [ কবিতা ] -রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

ছোটো নির্ঝরিণী শুধু বহে মাঝখানে,

বিদায়ের পদধ্বনি গাঁথে সে করুণ কলগানে।

              চেয়ে দেখি অনিমিখে

          তুমি চলিয়াছ কোন্‌ শিখরের দিকে;

যেন স্বপ্নে উঠিতেছ ঊর্ধ্ব-পানে,

        যেন তুমি বীণাধ্বনি, শান্ত সুরে তানে

                       চলিয়াছ মেঘলোকে।

                   আজি মোর চোখে

        কাছের মূর্তির চেয়ে দূরের মূর্তিতে তুমি বড়ো

অনেক দিনের মোর সব চিন্তা করিয়াছি জড়ো,

                   সব স্মৃতি,

        অব্যক্ত সকল প্রীতি, ব্যক্ত সব গীতি–

উৎসর্গ করিনু আজি, যাত্রী তুমি, তোমার উদ্দেশে।

            স্পর্শ যদি নাই করো যাক তবে ভেসে।

আরও দেখুনঃ

Amar Rabindranath Logo

মন্তব্য করুন