বিলয় কবিতা । biloy kobita । চৈতালী কাব্যগ্রন্থ । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বিলয় কবিতা [ biloy kobita ] টি কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর চৈতালী-কাব্যগ্রন্থের অংশ। এটি আশ্বিন, ১৩০৩ (১৮৯৬ খ্রীস্টাব্দ) বঙ্গাব্দে প্রকাশিত হয়। এতে সর্বমোট ৭৮টি কবিতা রয়েছে। এটি রবীন্দ্রনাথের কাব্য রচনার “চিত্রা-চৈতালি পর্ব”-এর অন্তর্গত একটি উল্লেখযোগ্য সৃষ্টি।

কাব্যগ্রন্থের নামঃ চৈতালী 

কবিতার নামঃ বিলয়

 

বিলয় কবিতা । biloy kobita । চৈতালী কাব্যগ্রন্থ । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

বিলয় কবিতা । biloy kobita । চৈতালী কাব্যগ্রন্থ । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

যেন তার আঁখি দুটি নবনীল ভাসে

ফুটিয়া উঠিছে আজি অসীম আকাশে।

বৃষ্টিধৌত প্রভাতের আলোকহিল্লোলে

অশ্রুমাখা হাসি তার বিকাশিয়া তোলে।

তার সেই স্নেহলীলা সহস্র আকারে

সমস্ত জগৎ হতে ঘিরিছে আমারে।

বিলয় কবিতা । biloy kobita । চৈতালী কাব্যগ্রন্থ । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

বরষার নদী-‘পরে ছলছল আলো,

দূরতীরে কাননের ছায়া কালো কালো,

দিগন্তের শ্যামপ্রান্তে শান্ত মেঘরাজি–

তারি মুখখানি যেন শতরূপ সাজি।

আঁখি তার কহে যেন মোর মুখে চাহি–

“আজ প্রাতে সব পাখি উঠিয়াছে গাহি,

শুধু মোর কণ্ঠস্বর এ প্রভাতবায়ে

অনন্ত জগৎমাঝে গিয়েছে হারায়ে।”

বিলয় কবিতা । biloy kobita । চৈতালী কাব্যগ্রন্থ । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

আরও দেখুনঃ

মন্তব্য করুন