সমাপ্তি কবিতা [ Somapti Kobita ] – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

সমাপ্তি কবিতা [ Somapti Kobita ]

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাব্যগ্রন্থ : খেয়া [ ১৯০৬ ]

কবিতার শিরনামঃ সমাপ্তি somapti

সমাপ্তি somapti [ কবিতা ] -রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

সমাপ্তি কবিতা [ Somapti Kobita ] – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বন্ধ হয়ে এল স্রোতের ধারা,

           শৈবালেতে আটক প’ল তরী।

  নৌকা-বাওয়া এবার করো সারা–

           নাই রে হাওয়া, পাল নিয়ে কী করি।

  এখন তবে চলো নদীর তটে,

           গোধূলিতে আকাশ হল রাঙা।

  পশ্চিমেতে আঁকা আগুন-পটে

           বাব্‌লাবনে ওই দেখা যায় ডাঙা।

                ভেসো না আর, যেয়ো না আর ভেসে–

                চলো এখন, যাবে যে দূরদেশে।

  এখন তোমায় তারার ক্ষীণালোকে

           চলতে হবে মাঠের পথে একা।

  গিরি কানন পড়বে কি আর চোখে,

           কুটিরগুলি যাবে কি আর দেখা।

           পিছন হতে দখিন-সমীরণে

           ফুলের গন্ধ আসবে আঁধার বেয়ে,

  অসময়ে হঠাৎ ক্ষণে ক্ষণে

           আবেশেতে দিবে হৃদয় ছেয়ে।

                চলো এবার, কোরো না আর দেরি–

                মেঘের আভাস আকাশ-কোণে হেরি।

 

ওরে আমার কর্মহারা, ওরে আমার সৃষ্টিছাড়া ore amar kormohara ore amar sristihara [ কবিতা ] - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর [ Rabindranath Tagore ]

  হাটের সাথে ঘাটের সাথে আজি

           ব্যাবসা তোর বন্ধ হয়ে গেল।

  এখন ঘরে আয় রে ফিরে মাঝি,

           আঙিনাতে আসনখানি মেলো।

  ভুলে যা রে দিনের আনাগোনা,

           জ্বালতে হবে সারা রাতের আলো।

  শ্রান্ত ওরে, রেখে দে জাল-বোনা,

           গুটিয়ে ফেলো সকল মন্দ ভালো।

                ফিরিয়ে আনো ছড়িয়ে-পড়া মন–

                সফল হোক সকল সমাপন।

আরও দেখুনঃ

Amar Rabindranath Logo

মন্তব্য করুন