হলাহল halaahal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

হলাহল halaahal [ কবিতা ]

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাব্যগ্রন্থ : সন্ধ্যা সঙ্গীত

কবিতার শিরোনামঃ হলাহল

হলাহল halaahal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

হলাহল halaahal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

       এমন ক’দিন কাটে আর!

    ললিত গলিত হাস,        জাগরণ, দীর্ঘশ্বাস,

    সোহাগ, কটাক্ষ, মান, নয়নসলিলধার,

    মৃদু হাসি–মৃদৃ কথা –আদরের, উপেক্ষার–

    এই শুধু, এই শুধু, দিনরাত এই শুধু–

        এমন কদিন কাটে আর!

হলাহল halaahal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

    কটাক্ষে মরিয়া যায়,   কটাক্ষে বাঁচিয়া উঠে,

    হাসিতে হৃদয় জুড়ে, হাসিতে হৃদয় টুটে,

    ভীরুর মতন আসে        দাঁড়ায়ে রহে গো পাশে,

    ভয়ে ভয়ে মৃদু হাসে,  ভয়ে ভয়ে মুখ ফুটে,

    একটু আদর পেলে অমনি চরণে লুটে,

    অমনি হাসিটি জাগে মলিন অধরপুটে,

    একটু কটাক্ষ হেরি অমনি সরিয়া যায়–

    অমনি জগৎ যেন শূন্য, মরুভূমি-হেন,

    অমনি মরণ যেন প্রাণের অধিক ভায়।

    প্রণয় অমৃত এ কি?    এ যে ঘোর হলাহল–

    হৃদয়ের শিরে শিরে       প্রবেশিয়া ধীরে ধীরে

    অবশ করেছে দেহ, শোণিত করেছে জল।

হলাহল halaahal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

    কাজ নাই, কর্ম নাই,     বসে আছে এক ঠাঁই,

    হাসি ও কটাক্ষ লয়ে খেলেনা গড়িছে যত,

    কভু ঢুলে-পড়া আঁখি কভু অশ্রুভারে নত।

    দূর করো, দূর করো,  বিকৃত এ ভালোবাসা

    জীবনদায়িনী নহে, এ যে গো হৃদয়নাশা।

    কোথায় প্রণয়ে মন যৌবনে ভরিয়া উঠে,

    জগতের অধরেতে হাসির জোছনা ফুটে,

    চোখেতে সকলি ঠেকে বসন্তহিল্লোলময়,

    হৃদয়ের শিরে শিরে শোণিত সতেজে বয়–

    তা নয়, একি এ হল, একি এ জর্জর মন!

    হাসিহীন দু অধর, জোতিহীন দু নয়ন!

হলাহল halaahal [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

    দূরে যাও, দূরে যাও, হৃদয় রে দূরে যাও–

    ভূলে যাও, ভুলে যাও, ছেলেখেলা ভুলে যাও।

    দূর করো, দূর করো, বিকৃত এ ভালোবাসা–

    জীবনদায়িনী  নহে, এ যে গো হৃদয়নাশা।

বিচারক bicharak [ কবিতা ]- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

আরও পড়ুনঃ

সতিমির রজনী sotimir rajani [ কবিতা ] রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 

 

মন্তব্য করুন

error: Content is protected !!